1. admin@sahittyadiganta.com : সাহিত্য দিগন্ত ডেস্ক : সাহিত্য দিগন্ত ডেস্ক
  2. editor.sahittodigonto@gmail.com : সম্পাদক : জায়েদ হোসাইন লাকী : সম্পাদক : জায়েদ হোসাইন লাকী
মহীতোষ গায়েন-এর কবিতা - সাহিত্য দিগন্ত পত্রিকা
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কবি শাহীন রেজার জন্মদিন পালিত বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করল ADAMP ঢাকা সাহিত্য পরিষদ-এর আজীবন সদস্য হলেন পশ্চিমবঙ্গের খ্যাতিমান সমাজসেবক অনির্বাণ সামন্ত এনহেদুয়ানা : পৃথিবীর প্রথম নারী কবি। বাঙ্গালীর কণ্ঠ সাহিত্য পুরস্কার ২০২৪ পাচ্ছেন কবি, সম্পাদক সৈয়দ এরশাদুল হক মিলন মানুষের জন্য লিখে যেতে চাই -কবি দেলোয়ার হোছাইন এক ৯ নয় ১’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। বাংলা একাডেমি পুরস্কার ফেরত দিলেন কথাসাহিত্যিক জাকির তালুকদার শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ালো ADAMP পরিবার বাংলাদেশের পত্র-পত্রিকায় ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ ও মুজিবনগর সরকারঃ প্রাসঙ্গিক ইতিহাস অনুসন্ধান। ড. মহীতোষ গায়েন।

মহীতোষ গায়েন-এর কবিতা

মেহবুবা হক রুমা I সাহিত্য ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩৪২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বাসর

পা ছোঁয়ালেই পদ্ম ফোটা রাত
ন‍্যাংটা ঘরে উপুর্যপরি হানছে করাঘাত
বলতে পারো আমি তোমার কে?

পায়ের সঙ্গে রমণ সুখের পা,
ক্লান্ত নিষাদ বললো, পাখি কুলায় ফিরে যা-
নামছে আকাশ ক্ষুধার মাটিতে।

পাপ নিকানো পঙ্ক-বাসরঘর
সাধ্বী এলো সওদা নিয়ে ঊষর বুকের ঝড়;
তার ঠোঁটে আজ পলাশ ফুটেছে।

অনৈতিহাসিক ঘোড়া

পূর্ণিমার চাঁদ ডুবে যায়…
কালে খাওয়া বাবলা গাছের নীচে
দাঁড়িয়ে থাকে অনৈতিহাসিক ঘোড়া।

নক্ষত্রের আলোয় একে একে এসে
জমা হয় বর্তমান, ভূত ও ভবিষ্যৎ…
নিবিড় আলোচনা হয় নীরবে নির্ভয়ে।

ত্রিকাল একত্রিত হয়,একত্রিত হয়
আশাবরি রাগ,অনুরাগ,ভালোবাসা;
চরাচরে ভাস্বরিত শান্তি ও প্রেম।

অনৈতিহাসিক ঘোড়া মুখ তুলে তাকায়
সংযমী কামনা,বাতাস শান্ত স্থিতধী হয়,
ভুবনডাঙার মাঠে তখন শান্তি ও মৈত্রী।

ক্ষয়িষ্ণু বৃক্ষে আসে নব জীবনের পল্লব…
সামুদায়িক যন্ত্রণার অবসান হয়,
অনৈতিহাসিক ঘোড়া জারি রাখে সংগ্রাম।

নবজীবনের গান

রাত শেষ হয়ে এলো চড়াই উৎরাই
হয়নি এখনো অনেক কথাই বলা,
পূর্ণিমা চাঁদ ডুবে যায় খাল পাড়ে
হয়তো হবে না একসাথে পথ চলা।

ছেলেটি মেয়েটি দেখেছে অনেক স্বপ্ন
সব স্বপ্ন ভেসে গেছে দুঃসময়ের জলে,
ছিন্ন তার একসাথে নব জীবনের গান
বহু স্মৃতি অম্লান সেই কৃষ্ণচূড়ার তলে।

তারা মিশেছে অজানা অচেনা পথে
হয়তো আবার হবে তাদের দেখা,
সে পথে আছে বহু সংশয় সংগ্রাম
এবার লড়াই আর নয় একা একা।

ভোর হয়ে এলো উঠবে মুক্তি সূর্য
নতুন করে লড়াই তাদের জারি,
প্রতিরোধ গানে গণ অঙ্গীকারে
সব হারাদের জীবন গড়তে পারি।

লড়াই

লড়াইটা শুধু একাই লড়তে হয়
কেউ করে নি মনের সঙ্গে দেখা,
কেউ পাশে নয় স্বজন বন্ধুও নয়,
কিশোর থেকেই লড়াই একা একা

লড়াইটা সেই ছোটকাল থেকে ছিল
তখন লড়াই খিদের এবং মনের,
লড়াই ছিল ছেঁড়া পোশাকে একা
সঙ্গে ছিল আকাশ ও পাখি বনের।

আস্তে আস্তে বয়স হলো ষোলো
পকেট শূন্য খিদের জ্বালায় ঘোরা,
হস্টেলে কেউ খাবার আনতে দিত
কুড়িয়ে এবং প্রসাদেই পেট পোরা।

অবশেষে এলো যৌবন লতাপাতা
শরীর বাড়ছে মনের খাতাও ফাঁকা,
তারপরেতে আন্দোলনে পথে নামা
হৃদয়ে নির্যাতিত মানুষের মুখ আঁকা।

মনের এবং সংগ্রামী জোর বাড়লো
ক্যাম্পাসে তখন বিপ্লবী ঝড় তোলা,
পড়া শেষ পর্বে,প্রেমের এলো দোলা
যায়নি তবু দুঃখ, কষ্ট জীবন ভোলা।

লড়াইটা এবার কর্মজীবনে যাওয়া
অবশেষে এলো সেই সুদিনের মুখ,
সুখ আর দুঃখ মিলিয়ে লড়াই জারি
লড়াই ভরা আগুন, পরশমণি বুক।

চলে জীবনযুদ্ধ এবং অন্যায় প্রতিরোধ
এবার লড়াই রুটি, রুজি ও মানুষের জন্য,
লড়াই একাই প্রতি পদে পদে টিকে থাকার
সাথে কেউ নেই স্বজন এবং বন্ধু কেউ অন্য।

লড়াই চলছে অবিরত, থেমে থাকেনি বন্ধু
সঙ্গে ফুল, গাছ পাখি, নদী; সূর্য, চন্দ্র ও তারা,
বন্ধুবেশী শত্রু, মুখোশ-রাজনীতি বিরুদ্ধ লড়াই
এবার বন্ধু এসো সব পাশে; মার খাচ্ছো যারা।

মহীতোষ গায়েন
(কবি, সংগঠক)
ভাইস-প্রিন্সিপ্যাল, সিটি কলেজ, কলকাতা।

Facebook Comments Box
Website | + posts

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মিকি মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান। © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Rudra Amin